Categories
See All >
জীবনের ঠিক কতটা সময় বাথরুমে কাটান আপনি?

জীবনের ঠিক কতটা সময় বাথরুমে কাটান আপনি?

Health Blogs
Hit Count : 114

কেউ বলে বাথরুম। কেউ বলে টয়লেট। কারও কাছে শৌচালয়। প্রত্যেকের প্রাত্যহিক জীবনে গুরুত্বপূর্ণ অংশ। প্রাকৃতিক কাজ করার সঙ্গে সঙ্গে যেখানে বসে জীবনের সুখ-দুঃখ, কষ্ট-আনন্দের কথা ভাবা যায়। কোনও তাড়া থাকে না। থাকে না কোনও পিছু টান। এমন অনেক মানুষ থাকেন যাঁরা বাথরুমে গিয়ে ঘণ্টার পর ঘণ্টা সময় কাটান। একবার ঢুকলে বের হতেই চান না। অতক্ষণ বাথরুমে কী করেন তাঁরা? আচ্ছা, জীবনের কতটা সময় আমরা বাথরুমে কাটাচ্ছি? কোনদিন হিসেব করে দেখেছেন?

 

December 7,2021 / by Marziah Jahra Liana

Department of ICE (BAUET).

https://www.facebook.com/marziah.jahraliana.5 

 

জীবনের কতটা সময় আমরা বাথরুমেকাটাচ্ছি?


শৌচকর্ম সারতে একজন সুস্থ মানুষের সর্বোচ্চ ১০ থেকে ১৫ মিনিট সময় লাগে। এরচেয়ে বেশি সময় লাগলে বুঝতে হবে ওই ব্যক্তির কোনও রোগ রয়েছে। কনস্টিপেশন বা পেটের সমস্যা বা লিভারের সমস্যা বা অন্য কিছু। আবার অনেকে বাথরুমে বসেই বই পড়েন। সিনেমা দেখেন বা গেম খেলেন বা আকাশ-পাতাল ভাবেন। একেক জনের শৌচকর্মে যাওয়ার অভ্যাস একেক রকমের হয়। কেউ সপ্তাহে তিনবার যান। কেউ আবার দিনে তিনবার যান। এটা শরীরিক সক্ষমতা, হজম ক্ষমতা, জল খাওয়ার পরিমাণ ইত্যাদির উপর নির্ভর করে।  যদি ধরে নেওয়া যায়, একজন ব্যক্তি দিনে একবার ১২ মিনিট ধরে বাথরুমে থাকেন। তবে বছরে তিনি ৪৩৮০ মিনিট অর্থাৎ ৭৩ ঘণ্টা বাথরুমে থাকেন। যদি গড়ে মানুষ ৭৯ দিন বাঁচেন। তবে বছরে ৭৩ ঘণ্টা ধরে মোট ৫৭৬৭ ঘণ্টা বাথরুমে থাকেন। অর্থাৎ ২৪০ দিন বাথরুমে থাকেন। 



বাথরুমে বেশি সময় কাটানো কি ভালো?

চিকিৎসকদের কথায়, দশ মিনিটের বেশি সময় বাথরুমে সময় কাটানো একেবারেই ঠিক নয় কারণ, বাথরুম থেকেই আপনার শরীরে প্রবেশ করতে পারে নানা রোগ-জীবাণু ডাক্তাররা বলছেন, বাথরুমের ফ্লোরে সবচেয়ে বেশি জীবাণু প্রভাব থাকে আমরা যখনই বাথরুম ব্যবহার করি, তখন আরও বেশি সজাগ হয়ে ওঠে ওই জীবাণুগুলো আর যা কিনা অসুস্থ করতে পারে আমাদের তাই ডাক্তাররা বলছেন, বাথরুমে ঢোকার সময়, প্রথমই জল দিয়ে ধুয়ে নিন বাথরুমে ফ্লোর 

                     

অনেকেই বেশি সময় কাটান কমোডে৷ এই ধরণের অভ্যাস কিন্তু মোটেই ভালো নয় চিকিৎসকরা বলছেন, কমোডের মধ্যে জীবাণুরা বাসা বাঁধে আর যা কিনা পেটের খারাপ, জ্বরের জন্য দায়ী ডাক্তাররা বলছেন, কমোড ব্যবহারের সময় প্রয়োজনে ডেটল বা স্যাভলোন ছিঁটিয়ে নিতে পারেন তাহলে, এই জীবাণু সংক্রমণ আটকানো সম্ভব৷তবে দেশি-বিদেশি সব চিকিৎসক সবারই মত, বাথরুমে যত পারেন কম সময় কাটান আর সবর্দা পরিষ্কার রাখুন আপনার বাথরুম


বাসা-বাড়ি বানানোর সময় বাথরুম  বানানোর দিকে নজর দিতে হবে।


বাড়ি বানানোর সময়ে সবচেয়ে অবহেলিত অংশ কিন্তু বাথরুম। ধরুন আপনি মনের মাধুরী মিশিয়ে সুন্দর করে সাজালেন আপনার বাড়ি। লিভিংরুম থেকে বেডরুম, সবেরই রুচিসম্মত অন্দরসাজ। তবে বাথরুম নিয়ে একটু ভাবনা-চিন্তা না করলে পুরো বাড়ির সৌন্দর্যর সঙ্গে বাথরুমটা কিন্তু বেমানান রয়ে যাবে। বাথরুম যত ছোটই হোক, একটু বুদ্ধি খাটিয়ে ডিজাইন করতে পারলে কিন্তু এটাই হয়ে উঠতে পারে আপনার একা সময় কাটানোর সেরা জায়গা।



তথ্যসূত্রঃ

https://l.facebook.com/l.php?u=https%3A%2F%2Fzeenews.india.com%2Fbengali%2Fhealth%2Fhow-much-of-life-you-spend-in-bathroom_411724.html%3Ffbclid%3DIwAR2WWySB3eUy38Q58sjoGnwmMYvpG1MTCgrHiI6kzAE8n9bXOfAX0DfszLA&h=AT1xPJ2zeM0t-2UrnDvFCrfgYon-tOLh116aEeOTNHNHk_t-lxax2z95f2LL4SKWdDo9lsUXugHpy0mLUZgAp25m9Nn4k3YAHQUol5hEa-7gVD_4bXI17E4_lvOjmEoz0InB&__tn__=%2CmH-R&c[0]=AT155LtLaUcjpdC8XQ1F4svhu8iKPLiiUm5LLQNK91TEN5-Gq9gqU6mf3zFiicJTgCRnOajK3riAI7sZCxmbPT3nIAVJD2GG36AR5vcYWsauM2cttI4vtq8W3jvHjKXXE1l3IWRBx4ORCjg0uBaw4tJin505BQdRby3MEIHOS7VskJI